টাঙ্গাইলে শিশু অপহরণ ও হত্যার দায়ে দুই যুবকের আমৃত্যু  কারাদন্ড 

0 24

নিউজ স্রোতঃ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে এক শিশুকে অপহরণ ও হত্যা করার দায়ে দুই যুবককে যাবজ্জীবন (আমৃত্যু) কারাদÐ একই সাথে এক লাখ টাকা করে জরিমানা এবং অপর দুই শিশুকে ১০9 বছর করে কারাদÐ দিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার(২৬ জানুয়ারি) দুপুরে টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন ওই রায় ঘোষণা করেন।
আমৃত্যু দÐিত ব্যক্তিদ্বয় হচ্ছেন- ঘাটাইল উপজেলার রামপুর গ্রামের মো. শাহজাহানের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন(৩০) ও গোপালপুর উপজেলার কামাক্ষা বাড়ী গ্রামের হিরালাল আর্য্যর ছেলে গৌতম চন্দ্র আর্য্য। দÐিত অপর দুই আসামি শিশু হওয়ায় তাদেরকে ১০ বছর করে কারাদÐ দেওয়া হয়। তারা হচ্ছেন- ঘাটাইল উপজেলার নিয়ামতপুর কাজিপুর গ্রামের মো. আব্দুল হালিমের ছেলে মো. হাসান আলী (১৭) ও ভূঞাপুর উপজেলার রুহুলী পশ্চিম পাড়া গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে মো. সোহেল (১৭)।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এপিপি শাহানশাহ মিন্টু জানান, ভূঞাপুর উপজেলার রুহুলী গ্রামের মাজেদা বেগমের নাতী মাসুদ রানা সয়ন ২০১৩ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে মাটিকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যায়। এ সময় দÐিত আসামিরা শিশু মাসুদ রানা সয়নকে মোটরসাইকেলে তুলে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে আসামীরা শিশুটির পরিবারের কাছে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করে। মুক্তিপনের টাকা না পেয়ে শিশু মাসুদ রানা সয়নকে অপহরণকারীরা হত্যা করে। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৩ সালের ৩ অক্টোবর শিশুটির নানি মাজেদা বেগম বাদি হয়ে ভূঞাপুর থানায় অজ্ঞাত নামা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে এ মামলায় গৌতম চন্দ্র আর্য্য, হাসান আলী ও মো. সোহেল আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন।
ট্রাইব্যুনাল সাক্ষ- প্রমাণের ভিত্তিতে উল্লেখিত রায় ঘোষনা করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, অ্যাডভোকেট শামীম চৌধুরী দয়াল ও খুকু রাণী দাস। আসামি পক্ষের আইনজীবীরা জানান, আদালতের রায়ে তারা সন্তুষ্ট নন। এ মামলায় তারা উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.