মধুপুরে রক্তিপাড়ার মাছ ব্যাবসায়ী বেলালকে পিটিয়ে আহত

0 1

মধুপুর প্রতনিধঃ

 

টাঙ্গাইলের মধুপুরের রক্তিপাড়া গ্রামের মোতালেব হোসেনের ছেলে বেলাল হোসেন(৪০)কে বুধবার (১২ আগষ্ট) রাতে মধুপুর দৈনিক বাজার মোড়ে পিটিয়ে আহত করেছে মধুপুর দৈনিক বাজারের মাছ ব্যাবসায়ী হাসমত ও তার লোকজন। এসময় তার সাথে থাকা আমীর হোসেন (৫০)কে তারা মারপিট করে আহত করে। জানা যায় বেলাল হোসেন উপজেলার রক্তিপাড়া বাজারে মাছের আড়ৎ দিয়ে সেখানে মাছের ব্যাবসা করেন। সেখান থেকে এলাকার মাছ ব্যাবসায়ীরা পাইকারী দরে মাছ ক্রয় করে মধুপুরের বিভিন্ন বাজারে নিয়ে বিক্রি করেন। মধুপুর বাজারের মাছ ব্যাবসায়ী হাসমত আলী রক্তিপাড়া বেলাল হোসেনের মাছের আড়ৎ থেকে প্রায় এক ব্ৎসব  পূর্বে তিন হাজার টাকার মাছ বাকীতে ক্রয় করেন। প্রায় সময় উক্ত টাকার জন্য হাসমতের নিকট আসতেন বেলাল। প্রায় এক মাস পূর্বে হাসমত রক্তিপাড়া মাছ ক্রয় করতে গেলে বেলাল তার পাওনা টাকার কথা বললে হাসমত আলী ক্ষিপ্ত হয় সেখানে তাদের মধ্যে কথা কাটি হয় এবং এক পর্যায়ে সে পনের শত টাকা দিয়ে বাকী টাকা পরবর্তীতে দিয়ে দিবে বলে চলে আসে। সেখান থেকেই হাসমত আলী বেলালের উপর ক্ষিপ্ত ছিল বলে জানান বেলাল হোসেন। বেলালের ছোট ভাই দুলাল  মধুপুর মাছ বাজারে এলে হাসমত তাকে আটকিয়ে মারপিট করে বলে জানান দুলাল। এঘটনা মীমাংসার কথা বলে বেলালকে মধুপুর মাছ বাজারে আসতে বলে হাসমত। হাসমতের কথামত বেলাল তার সাথে থাকা আমীর হোসেন ও তার নিকটতম এক আত্বীয়কে নিয়ে মধুপুর মাছ বাজারে আসার পথে বাজারের সন্নিকটে তাদেরকে আক্রমন করে হাসমত এবং হাসমতের লোকজন। সেখানে তাদেরকে এলোপাথারী ভাবে মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করে হাসমত এবং তার লোকজন। বেলালের নিকট থাকা ৮৬ হাজার টাকাও তারা নিয়ে যায় বলেও জানান। লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য মধুপুর স্বাস্হ কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।বর্তমানে বেলাল হোসেন মধুপুর সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এবাপারে মধুপুর থানায় মামলার প্রস্ততি চলছে বলে জানান বেলাল হোসেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.