মির্জাপুরে দুই ব্যক্তির গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ

0 1

মির্জাপুর প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে মোটরসাইকেল আরোহী দুই ব্যক্তির গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের সোহাগপাড়া এলাকার জুঁই-জুথী ফিলিং স্টেশনের উত্তরপাশ বর্ষার পানি থেকে এই মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তাদের দুজনের গলায় কাটা রক্তাক্ত জখম রয়েছে। তবে পুলিশের ধারণা হত্যা নয় দুর্ঘটনায় তাদের মৃত্যু হতে পারে। নিহতরা হলেন, কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী থানার শান্তিনগর গ্রামের ফরিদ ব্যাপারীর ছেলে মাসুদ রানা (৩০) ও রংপুর জেলার কুতোয়ালী থানার চানবাড়ি গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে মামুন (৩২)। নিহতদের মধ্যে মাসুদ রানা গাজীপুরের কাশিমপুরে গ্রামীণ ফেব্রিকস নামে একটি পোশাক কারখানায় কর্মরত ছিলেন এবং মামুন একই জেলার চক্রবর্তী এলাকায় একটি মোবাইল লোড ও বিকাশের ব্যবসা পরিচালনা করতেন বলে পুলিশ জানিয়েছেন। জানা গেছে, উত্তর বঙ্গের ওই দুই জেলার ওই দুই বাসিন্দা ঈদের ছুটি শেষে একই মোটরসাইকেলেযোগে কর্মস্থলে ফিরছিলেন। শনিবার ভোরে মহাসড়কের ওই স্থানে পৌছালে তারা ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে থাকতে পারে অথবা দুর্ঘটনাকবলিত হয়ে থাকতে পারে। সকাল সাতটার দিকে মহাসড়কের পাশে বন্যার পানিতে তাদের দুজনের মরদেহ স্থানীয়রা ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। এসময় সেখান থেকে তাদের ব্যবহৃত একটি ইয়ামাহা মোটরসাইকেল, কাপড়চোপড় ও কাগজপত্রসহ একটি ব্যাগ উদ্ধার করে পুলিশ। তবে পুলিশের ধারনা দ্রæতগতির মোটরসাইকেলকে ভারী যানবাহনে চাপাদিলে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে মহাসড়কের পাশে বিদ্যুতের নীচু তার গলায় লেগে কাটা জখমের সৃষ্টি হয়ে থাকতে পারে। মির্জাপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) দিপু সরকার জানিয়েছেন মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানোর ব্যবস্থা করচ্ছে। অধিকতর তদন্তের পর হত্যা না দুর্ঘটনা তা বিস্তারিত জানা যাবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.