টাঙ্গাইলের বিভিন্ন ঔষধের দোকানে র‌্যাবের অভিযান- নেশা জাতীয় লোপেন্টা এবং ট্যাপেন্টাডলঔষধ রাখার দায়ে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সর্বমোট ৮ জনের মধ্যে ৭ জনকে ৯৫ হাজার টাকা জরিমানা ও ১জনকে করাদন্ড প্রদান

0 14

নিউজ  স্রোতঃ
র‌্যাব তার প্রতিষ্ঠা লগ্ন হতেই খুন, ধর্ষণ, অপহরণ, জঙ্গীদমন, ছিনতাই, চাঁদাবাজ, চুরি, ডাকাতি এবং অবৈধ মাদক ব্যবসা ও চোরাচালানসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম বন্ধ করাসহ দুষ্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে অপরাধ নির্মূলে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে আসছে এবং র‌্যাব-১২, সিপিসি-৩, টাঙ্গাইল এর আওতাধীন এলাকাগুলিতে ব্যাপকভাবে সফলতা অর্জন করেছে। গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধিসহ সার্বক্ষনিক অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব ইতিমধ্যে জনগনের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

এরই ধারাবাহিকতায় আজ ২৮/০৬/২০২০ তারিখ ১৪.৩০ ঘটিকা হতে ১৯.০০ ঘটিকা পর্যন্ত টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতি থানাধীন এলেঙ্গা বাজারে ঔষধের দোকানে নেশা জাতীয় লোপেন্টা এবং ট্যাপেন্টাডল ঔষধ, রেজিষ্ট্রেশন বিহীন ঔষধ এবং মেয়াদ উর্ত্তীণ ঔষধ,নিবন্ধনভুক্ত ঔষধ বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে মজুদ রাখায় র‌্যাব-১২, সিপিসি-৩, টাঙ্গাইলের কোম্পানী কমান্ডার, মেজর আবু নাঈম মোঃ তালাত ও জনাব, মোঃ শাহরিয়ার রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, কালিহাতি এবং ড্রাগ সুপার নার্গিস আক্তার, টাঙ্গাইল কর্তৃক মোবাইল কোর্ট অভিযানের মাধ্যমে ঔষধ আইন ১৯৪০ এর ১৮ (এ) ২৭ ধারায় অভিযুক্ত ১। সুরুজ্জামান (৪২), পিতাঃ মোঃ জালাল উদ্দিন, সোনিয়া মেডিকেল হল’কে ০৩ (তিন) মাসের কারাদন্ড, ২। কবির হোসেন (৩২), পিতাঃ মৃত-কবিল উদ্দিন, অন্তরা মেডিকেল হল’কে নগদ ১০,০০০/- (দশ হাজার) টাকা, ৩। মোঃ নাসির উদ্দিন (৩৮), পিতাঃ নাজিম উদ্দিন শেখ, নুপুর ফার্মেসী’কে নগদ ২০,০০০/- (বিশ হাজার) টাকা, ৪। বাসু দেব দে (৫৮), পিতাঃ মৃত-অধিনি কুমার দে, মায়া মেডিকেল হল’কে নগদ ৩০,০০০/- (ত্রিশ হাজার) টাকা, ৫। অজয় সেন (৪০), পিতাঃ নিখিল চন্দ্র সেন, সেন মেডিকেল হল’কে নগদ ১০,০০০/- (দশ হাজার) টাকা, ৬। স্বপন কুমার বৌমিক (৫০), পিতাঃ মৃত-রাখাল চন্দ্র বৌমিক, দেব ফার্মেসী’কে নগদ ১০,০০০/- (দশ হাজার) টাকা, ৭। মোঃ খোকন হোসেন (৩৫), পিতাঃ মৃত-আলতাফ হোসেন, আলসেফা মেডিসিন শপ’কে নগদ ১০,০০০ /- (দশ হাজার) টাকা এবং ৮। মোঃ শাহদৎ হোসেন (৩৫), পিতাঃ মোঃ কেয়ামত আলী, সাহানা মেডিকেল হল সর্ব থানাঃ কালিহাতি ও জেলা টাঙ্গাইল’কে নগদ ৫,০০০/- (পাঁচ হাজার) টাকা অর্থ দন্ড এবং কারাদন্ড প্রদান করেন। সর্বমোট ০৮ জনের মধ্যে ০৭ জনকে ৯৫,০০০/- (পঁচানব্বই হাজার) টাকা অর্থ দন্ড এবং ০১ জনকে ০৩ (তিন) মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন।

র‌্যাবের এ ধরনের খুন, ধর্ষণ, অপহরণ, জঙ্গীদমন, ছিনতাই, চাঁদাবাজ, চুরি, ডাকাতি এবং অবৈধ মাদক ব্যবসা ও চোলাচালানসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম আভিযানিক সহ মোবাইল কোর্ট অভিযান চলমান থাকবে এবং ভবিষ্যতে এই ধরণের অপরাধ প্রতিরোধ ও দমন কার্যক্রম আরো জোরদার করা হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.