নিজের ভাতার টাকায় অসহায় মানুষের পাশে দাড়ালেন মুক্তিযোদ্ধা আঃ খালেক

0 34

নাগরপুর প্রতিনিধিঃ
“এটা কোন ত্রাণ বা সাহায্য নয় এটা হলো সমাজের সকলকে নিয়ে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়া” কথাগুলো বলছিলেন নাগরপুর উপজেলার বাড়িগ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ খালেক। তিনি আজ রবিবার বাড়িগ্রামের ৩৮ টি অসহায় পরিবারের পাশে খাদ্য সহায়তা নিয়ে দাড়াতে গিয়ে এসব কথা বলেন।
বাড়িগ্রামে গিয়ে দেখা যায়, বয়োবৃদ্ধ মুক্তিযোদ্ধা আঃ খালেক কাধে করে, সাইকেলে করে অসহায় মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন। খাদ্য সামগ্রী বিতরণের ছবি তুলতে গেলেও তিনি মানা করেন। তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন এসব পরিবার ঈদ করতে পারবে না তা কি করে হয়। তাই আমি আমার মুক্তিযোদ্ধার ভাতার টাকা দিয়ে সকলকে নিয়ে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়ার জন্য এ উদ্যোগ গ্রহন করি।
অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানো মুক্তিযোদ্ধার এ উদ্যোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে ছেলে চিত্র পরিচালক জসিম উদ্দিন জাকির বলেন, করোনা ভাইরাসের কারনে আমাদের এলাকার বেশির ভাগ মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে বেশ কিছু দুস্থ পরিবার রয়েছে যাদের অর্থনৈতিক অবস্থা বেশ নাজুক। আমাদের বাবা তাদের নাজুক অবস্থা দেখে আমাদের দুই ভাইয়ের সাথে তাঁর ইচ্ছার কথা শেয়ার করেন। তখন আমরা তাঁর সাথে শরীক হতে চাইলেও তিনি তা গ্রহন করেননি। তিনি তার ভাতা ও জমানো টাকা দিয়ে এলাকার ৩৮ টি পরিবারের প্রত্যেককে ৫ কেজি চাল, ১ লিটার তেল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি পেয়াঁজ, স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য সাবান এবং কিছু নগদ অর্থ বিতরণ করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.