টাঙ্গাইল পৌরসভার ১৮ টি ওয়ার্ডে ওএমএস এর ১০ টাকা কেজি চাল বিক্রি শুরু

0 189
নিউজ স্রোতঃ 
টাঙ্গাইল পৌরসভার ১৮ টি ওয়ার্ডে হতদরিদ্র ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে ওএমএস এর ১০ টাকা কেজি চাল চাল বিক্রি শুরু হয়েছে। 
পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে ৩০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার কাউন্সিলর ও চাউল বিতরণ সংশ্লিষ্ট কমিটির সদস্যদের নিয়ে কার্যক্রম উদ্বোধন ও পরিদর্শন করেন মেয়র জামিলুর রহমান মিরন।
টাঙ্গাইলে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জেলা লকডাউন হওয়ায় কর্মহীন হয়ে পড়া হতদরিদ্র ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে ওএমএস (OMS) এর বিশেষ চাল বিক্রির লক্ষ্যে ইতিপূর্বেই কমিটি গঠিত হয়েছে।
সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক কমিটিতে প্রতিটি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর, মহিলা কাউন্সিলর, সরকারি কর্মকর্তা/কর্মচারী ১ জন, মনোনীত শিক্ষক প্রতিনিধি ১জন, গণমাধ্যম কর্মী (সাংবাদিক) ১ জন, গণ্যমান্য লোক ২জন, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রতিনিধি ১জন, ইমাম/পুরোহিত ১জন, স্থানীয় ব্যবসায়ী ১জন, স্কাউট  প্রতিনিধি ১জন, ওয়ার্ড কমিটি কর্তৃক মনোনীত ১জন’সহ মোট ১২ জনের কমিটি গঠন করা হয়েছিল।
টাঙ্গাইল পৌরসভার ১৮ টি ওয়ার্ডে তালিকা প্রস্তুত কল্পে ১২ সদস্য বিশিষ্ট ওয়ার্ড কমিটি গঠিত করা হয়েছিল।
মেয়র জামিলুর রহমান মিরন বলেন, সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক কমিটির সকল সদস্য সম্মিলিতভাবে স্বচ্ছতার সাথে তার ওয়ার্ডের সকল  মহল্লার প্রকৃত অসহায়, দুঃস্থ, দরিদ্র ও কর্মহীন লোক (যেমনঃ রাস্তায় ভাসমান মানুষ, প্রতিবন্ধী, বয়স্ক ব্যক্তি, ভিক্ষুক, ভবঘুরে, দিনমজুর, রিকশাচালক, ভ্যানচালক, পরিবহন শ্রমিক, রেস্টুরেন্ট শ্রমিক, ফেরিওয়ালা, চা শ্রমিক, চা এর দোকানদার, যারা দৈনিক আয়ের ভিত্তিতে সংসার চালায় তাদের তালিকা প্রস্তুত করেছে।
বিশেষভাবে বলা হয়েছে, পৌর এলাকার জন্য ওএমএস খাতে নির্ধারিত মাসিক বরাদ্দ যারা কোন সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতাভুক্ত নয়, অর্থাৎ যাদের নামে সামাজিক কোনো কর্মসূচির কার্ড করা আছে তাদের বাদ দিয়ে, দরিদ্র নিম্নবিত্ত যাদের কার্ড  নাই তাদের তালিকা করা হয়েছে।
মধ্যবিত্ত পরিবারের যারা বাইরে খাদ্য সহায়তা চাইতে পারে না তাদের পর্যায়ক্রমে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। একটি পরিবার থেকে একজন করে উপকারভোগী এ সুবিধা পাবে ।
মেয়র জামিলুর রহমান মিরন বিভিন্ন ওয়ার্ডে চাল বিক্রি কার্যক্রম উদ্বোধনের পর ২নং ওয়ার্ডের বৈল্লা বাজারে ১০ টাকা কেজি ওএমএস এর চাল বিক্রি  কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন ২নংওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ ইকবাল হোসেন আলী, মহিলা কাউন্সিলর মাহমুদা বেগম জেবু, গণমাধ্যম কর্মী (সাংবাদিক) মোঃ রাশেদ খান মেনন (রাসেল), শিক্ষক প্রতিনিধি মোঃ আজহার মাস্টার, গণমান্য সদস্য মোহাম্মদ মোকাদ্দেস অবঃপুলিশ, মোঃ শহিদুল ইসলাম সোমেজ, ইমাম মাওলানা রফিকুল ইসলাম, ব্যবসায়ী মোঃ আনোয়ার হোসেন, ওয়ার্ড কমিটি কর্তৃক মনোনীত সদস্য মোঃ হাজী মিন্টু’সহ অন্যান্য সদস্যগণ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.