নাগরপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে ১১ দোকানী ও ঢাকা ফেরত এক পরিবারকে জরিমানা

0 57

নাগরপুর প্রতিনিধিঃ
টাঙ্গাইলের নাগরপুরে রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্যের মূল্য নিয়ন্ত্রনে রাখতে শক্ত অবস্থানে প্রশাসন। নিয়মিত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে সাবধান করা সহ জরিমানাও করা হচ্ছে। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রনে টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মো.শহীদুল ইসলামের নির্দেশনা অনুযায়ী নাগরপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।
বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার সহবতপুর বাজার ও বাটরা বাজারে এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন তিনি। এ সময় বাড়তি দামে পন্য বিক্রি, মূল্য তালিকা টাঙ্গিয়ে না রাখা, নির্দেশনা না মেনে অপ্রয়োজনীয় দোকানপাট খোলা সহ বিভিন্ন অপরাধে ১১ জন ব্যবসায়ীকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইনের ৩৮, ৪০ ধারা ও দন্ড বিধির ১৮৮ ও ২৬৯ ধারায় ৪৭০০ টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় অন্যান্য দোকানগুলোকে প্রাথমিকভাবে সতর্ক করে দেওয়া হয়। এছাড়া উপজেলার খামার ধল্লায় ঢাকা ফেরত এক পরিবার হোম কোয়ারেন্টাইন না মানায় ২৬৯ ধারায় ২০০০ টাকা জরিমানা করে বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। এ সময় তারিন মসরুর সাংবাদিকদের বলেন, সরকার দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রনে আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে। দেশে ভোগ্য পন্যের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। রমজানকে কেন্দ্র করে কোন ব্যবসায়ী যেন কারসাজি করে অহেতুক পণ্যের দাম বাড়িয়ে না দেয় সেদিকে প্রশাসনের তীক্ষè দৃষ্টি রয়েছে। তাই অসাধু ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ব রুখতে পুরো রমজান মাস জুড়ে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। এছাড়া লকডাউনে সরকারি নিষেধাজ্ঞাকে উপেক্ষা করে যারা অপ্রয়োজনীয় দোকানপাট খোলা রেখেছেন তাদের প্রাথমিকভাবে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.