কাউন্সিলর আমিনের বিরুদ্বে ফৌজদারি মামলা দায়ের।। টাঙ্গাইল শহরে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়

0 630

নিউজ স্রোতঃ
টাঙ্গাইল পৌরসভার ১২নং ওর্য়াডের কাউন্সিলর আমিনুর রহমান আমিনের বিরুদ্বে টাঙ্গাইল সদর মডেল থানায় বে- আইনিভাবে মানুষদের গনহারে লাঠিপেটা করার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন সুপ্রিমকোটের আইনজীবি জে, আর ,খান রবিন ।টাঙ্গাইল সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন দৈনিক কালের স্রোতকে জানান কাউন্সিলর আমিনের বিরুদ্বে ১২এপ্রিল ফৌজদারি দন্ডবিধি ৩২৫/১৪৭/৩০৭/১০৯/৫০৬ ধারায় দায়েরকৃত মামলা গ্রহন করা হয়েছে ।তদন্তের জন্য এস আই মনির আহম্মেদকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ওসি জানান ,তদন্ত সাপেক্ষে কাউন্সিলর আমিনের বিরুদ্বে ব্যাবস্থা নেয়া হবে। উল্লেখ্য গত ৭ এপ্রিল পৌরসভার ১২নং ওয়াডের কাউন্সিলর আমিনুর রহমান আমিন তার অনুসারিদের নিয়ে বাজারে গিয়ে লোকজনদের কোন কিছু জিঙ্ঘাসা না করে লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকে । অতি উৎসায়িত হয়ে তার এ মারপিটের দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ায় তিনি সমালোচনার মুখে পড়েন ।কাউন্সিলর ক্ষমা চেয়ে বলেন মানুষ বিনা প্রয়োজনে টাঙ্গাইল শহরে ঘোরাফেরা করছিল এ কারনে আবেগে তিনি রাস্তায় নেমে লিিঠপেটা করেছেন এতে তার ব্যাক্তিগত কোন আক্রোশ ছিল না ।মানুষ পেটানোর ঘটনায় গত ৯ এপ্রিল সুপ্রিমকোটের আইনজীবী জে, আর ,খান রবিন ই-মেইলের মাধ্যমে পুলিশের মহাপরিদর্শক, টাঙ্গাইল পুলিশ সুপার, টাঙ্গাইল সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এবং পৌরসভার মেয়রকে কাউন্সিলর আমিনের বিরুদ্বে ব্যাবস্থা নিতে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়। আইনজীবী জে, আর ,খান রবিন জানান, করোনার মধ্যে মানুষকে সচেতন করার পরিবর্তে নির্যাতন করে তিনি ফৌজদারী দন্ডবিধিতে অপরাধ করেছেন এ কারনে তার বিরুদ্বে মামলা দায়ের করা হয়েছে।কাউন্সিলর আমিনের বিরুদ্বে ফৌজদারি মামলা হওয়ায় টাঙ্গাইল শহরে এ বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.