ঘাটাইলে প্রথম এক যুবকের শরীরে করোনা সনাক্ত-১শ’২০টি বাড়ি লকডাউন

0 68

ঘাটাইল প্রতিনিধিঃ

ঢাকায় চিকিৎসা নিতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়ে পালিয়ে আসা সদ্য অনার্স পাশ করা ঘাটাইলে ২৫ বছর বয়সি এক যুবকের শরীরে করোনা ভাইরাস (কভিড ১৯) ধরা পড়েছে। ওই যুবকের বাড়ি উপজেলার রসুলপুল ইউনিয়নের ঘোনার দেউলী গ্রামে। এ ঘটনায় এলাকাবাসি আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। তাদের মাঝে উদ্বেগ উৎকন্ঠা বেড়েছে। এতে তার বাড়িসহ এলাকার ১২০টি পরিবার লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত যুবক উদ্ধার করে কুয়েত মৈত্রি হাসপাতালে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে।
চান্দরা পল্লী বিদ্যুৎ এলাকার একটি পোশাক কারখানায় কাজ করা তার বোনের কাছ থেকে জানা যায়, তার ভাইয়ের দুটি কিডনি নষ্ট হয়ে যওয়ায় ৪ মাস ধরে তাকে ডায়ালসিস করা হচ্ছে। সেই মোতাবেক গত শনিবার (৪ এপ্রিল) তার বড় ভাইকে নিয়ে ডায়ালসিসের জন্য ঢাকা কিডনি হাসপাতালে যান। সেখানে ডাক্তার তার ডায়ালসিস না করিয়ে তার শরীরের নমুনা রেখে তাকে কুর্মিটোলা হাসপাতালে করোনা ভাইরাসের পরীক্ষার জন্য পরামর্শ দিয়ে পাঠিয়ে দেন। কিন্তু ভয়ে ওই হাসপাতালে না গিয়ে তারা মঙ্গলবার ঘাটাইল থেকে এ্যম্বুলেন্স নিয়ে বাড়িতে চলে আসেন। এখন তার বাড়িতে অসুস্থ্য মা ও ৩ ভাইবোন রয়েছে।
জানতে চাইলে ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: সাইফুর রহমান খান বলেন- আমরা প্রথমে আইইডিসিআর-এর ওয়েভ সাইট থেকে জানতে পারি টাঙ্গাইলে দুটি করোনা রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। পরে বিষয়টি টাঙ্গাইল সিভিল সর্জনের সহযোগিতায় আআইডিসিআর এর সাথে যোগাযোগ করে জানা যায় টাঙ্গাইলে করোনা ভাইসে আক্রান্ত দুজনের মধ্যে একটি রয়েছে ঘাটাইলে। কিন্তু এতে পুর্নাঙ্গ ঠিকানা দেয়া ছিলনা। শুধু নাম ও মোবাইল নম্বর দেয়া ছিল। তাও সেই মোবাইল নম্বরটি ছিল বন্ধ। এ অবস্থায় আমরা পুলিশ প্রশাসন ও গোয়েন্দা সংস্থার সহযোগিতায় তার ঠিকানা খুজে পাই। পরে শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে টাঙ্গাইল থেকে এ্যম্বুলেন্স নিয়ে আমাদের টিম গিয়ে তাকে নিয়ে আসে। ওই রাতেই তাকে ঢাকার কুয়েত মৈত্রি হাসপাতালে আইসুলেশনে পাঠানো হয়।

ইউএনও অঞ্জন কুমার সরকার বলেন, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর বাড়িসহ আশপাশের ১২০টি পরিবারকে লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.