টাঙ্গাইলে জেএমবি দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব

tangail-rab-arest-pic-1-copy

tangail-rab-arest-pic-1-copyসংবাদ ¯্রােত : ঢাকা মিরপুরে র‌্যাবের অভিযানে নিহত জঙ্গি আব্দুল্লাহর দুই সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২। গ্রেফতারকৃতরা হলেন জেএমবির সক্রিয় সদস্য সিরাজগঞ্জ জেলার সাহেদনগর গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে শাহাদত হোসেন ওরফে আমির হামজা (২২) এবং নেত্রকোনা জেলার মোহগঞ্জ থানার শেখুপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে স¤্রাট মিয়া ওরফে হুরের খোজে (২১) । সোমবার রাতে নারায়নগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে র‌্যাব -১২ সিপিসি-৩ একটি দল অভিযানিক দল চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করে।

এ প্রসঙ্গে র‌্যাব-১২এর অধিনায়ক ও অতিরিক্ত ডিআইজি সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, ঢাকার মিরপুরে অভিযানে নিহত আব্দুল্লাহর বাড়িতে গত ২৫ আগষ্ট বৈঠকে গ্রেফতারকৃত স¤্রাট ও শাহাদত স্বশরীরে অংশগ্রহন করে। এ সময় তারা বিভিন্ন স্থানে হামলার পরিকল্পনা করেছিল। যা র‌্যাবের প্রো-এক্টিভ অভিযানে ভেস্তে যায়। বিশ্বব্যাপি মুসলমানরা নির্যাতিত হচ্ছে তাই তারা ইসলামী খেলাফত প্রতিষ্ঠা ও ইসলামী শরিয়া আইন চালু করতে চায়। এই মতবাদে উদ্বুদ্ধ হয়ে তারা বিভিন্ন জিহাদি পোষ্ট, জিহাদি পিডিএফ ফাইল মনোযোগ দিয়ে পড়তো। একই সাথে তাদের সহযোগীদের ধ্বংসাত্মক পরিকল্পনা তাদের আকৃষ্ট করতো। এভাবেই তারা জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়ে। গত ১০ সেপ্টেম্বর তারা ওই বৈঠক করে। ওই বৈঠকে তারা বিভিন্ন জায়গায় ধ্বংসাত্মক কার্যক্রমের পরিকল্পনা করছিল। গ্রেফতারকৃতদের তথ্যের ভিত্তিতে অন্যান্য সহযোগীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান র‌্যাবের অধিনায়ক। আটককৃতদের কালিহাতীর থানার ১ নং মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে ও রিমান্ড আবেদন করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন র‌্যাব-১২ সিপিসি-৩ টাঙ্গাইল এর কোম্পানী কমান্ডার বীনা রাণী দাস, র‌্যাব-১২ সিপিসি-৩ সিরাজগঞ্জের অবস্ অফিসার থোয়াই অং মারামাসহ র‌্যাবের বিভিন্ন কর্মকর্তা।

*

*

Protected by WP Anti Spam

Top